সিরাজগঞ্জে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার মধ্যদিয়ে ৬টি আসনে আ’লীগ এগিয়ে!

0
40

অনলাইনডেস্ক: সিরাজগঞ্জের ৬টি সংসদীয় আসনের ৮৪৪টি কেন্দ্রের মধ্যে কয়েকটি স্থানে বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। দুপুরে সিরাজগঞ্জ-২(সদরের একাংশ-কামারখন্দ) আসনের কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল ভোট কেন্দ্রের বাইরে আ’লীগ ও বিএনপি সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে সংঘর্ষ এড়াতে পুলিশ ২ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে। এদিকে- সিরাজগঞ্জ-১(কাজিপুর-সদরের একাংশ), সিরাজগঞ্জ-৫(বেলকুচি-চৌহালী) ও সিরাজগঞ্জ-৬(শাহজাদপুর) আসনে অনেকাংশে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়। অপরদিকে, সিরাজগঞ্জ-২(সদরের একাংশ-কামারখন্দ), সিরাজগঞ্জ-৩(রায়গঞ্জ-তাড়াশ) ও সিরাজগঞ্জ-৪ (উল্লাপাড়া) আসনের কয়েকটি স্থানে বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে। এদিকে, ভোট কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি সন্তোসজনক থাকলেও অনেক ভোট কেন্দ্রে বিএনপির এজেন্ট দেখা যায়নি। এ সম্পর্কে অনেক কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বলেছেন, বিএনপি তাদের এজেন্ট নিযুক্ত করেনি। ভোট গ্রহণ শেষে ভোট গনণাও শুরু হয়েছে। জেলার সবগুলো আসনে আ’লীগ প্রার্থীরা ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। উল্লাপাড়া উপজেলার সলপ ইউনিয়নের রামনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে দুপুরে বিএনপি-জামায়াত সমর্থকরা নৌকা সমর্থকদের উপর হামলা চালায়। এতে ৫জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনার পর নৌকা সমর্থকরা প্রতিরোধ গড়ে তুললে কয়েকটি বাড়িঘর ও দোকান ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ছাড়া সিরাজগঞ্জ-৪(উল্লাপাড়া) সারাদিন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ শেষ হয়।রায়গঞ্জ উপজেলার ঝাঐল উচ্চ বিদ্যালয়, মালতীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ কয়েকটি কেন্দ্র থেকে নৌকার প্রার্থীর সমর্থকরা জাল ভোট দেয়ায় সময় বাধা প্রদান করলে ধানের শীষের এজেন্ট ও সমর্থকদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়। এছাড়া, উপজেলার চান্দাইকোনা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে রায়গঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও যুবদলের সভাপতি আইনুল হকসহ ধানের শীষের সমর্থকদের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় ৩জন আহত হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here