সাভারে বৃষ্টি উপেক্ষা করেই ত্রাণ নিচ্ছেন অসহায়রা !

0
28

বিশেষ প্রতিনিধিঃ রতন হোসেন মোতালেব::

করোনাভাইরাসের কারণে ঘর বন্দি হয়ে কর্মহীন হয়ে পরেছে দেশের মানুষ। ঘরে খাদ্য সংকটের কারণে সাভারের আশুলিয়ায় বৃষ্টিকে উপেক্ষা করেই ত্রান সামগ্রী নিচ্ছেন অসহায়, দৃস্থ ও কর্মহীন মানুষরা।

বৃহস্পতিবার (০২ এপ্রিল) বিকাল ৫ টার দিকে আশুলিয়ার গাজীরচট এলাকায় জাতীয় পার্টির উদ্যােগে দেওয়া ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সময় বৃষ্টির সঙ্গে হালকা ঝড়ো হাওয়া শুরু হয়।

এরপর থেকে ত্রাণ নিতে আসা অসহায় মানুষরা বৃষ্টির মধ্যে ভিজেই চাল, ডাল, আলুসহ নানা নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যের বস্তা নিতে লাইনে দারিয়ে রয়েছেন। একে একে বৃষ্টির ভেতরেই ত্রাণ নিয়ে বাড়ি ফিরছেন।

ত্রান নিতে এসেছে আকালিম নামের এক গৃহকর্মী। তিনি বলেন, আমি যে বাড়িতে কাজ করতাম করোনার কারণে আমার মালিক আমাকে তার বাড়ি যেতে না করেছেন। তাই গত কয়দিন যাবৎ ঘরে রয়েছি। জমানো টাকা এ কয়দিনে খেয়ে শেষ করেছি। বাসায় ৬০ বছরের আম্মা আছে দুইটা বাচ্চা আছে। তাদের নিয়ে সামনের দিনে কি খাবো এই কথা ভেবে আজ ত্রান নিতে এসেছি। কিন্তু এই সময় বৃষ্টি শুরু হয়েছে তবুও ত্রাণ নিয়েই বাড়ি যেতে হবে। না হলে সবাই মিলে না খেয়ে মরতে হবে।

লাইনে দারিয়ে থাকা আরেক রিকশা চালক আফজাল বলেন, বাসায় ভাত নাই। ত্রাণ নিতে এসেছি, ত্রাণ নিয়েই যাবো। বৃষ্টি টিস্টি বুঝিনা।

জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলার সিনিয়র সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, সারাবিশ্বে করোনা ভাইরাস যেভাবে ছড়িয়ে গেছে সে হিসেবে আমাদের সরকার যেভাবে আমাদের নির্দশনা দিয়েছেন অসহায় মানুষের পাশে থাকতে। সে কারণে অসহায়দের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করছি। আজ বৃষ্টির মধ্যেই প্রায় ৫০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ দিয়েছি। আগামীতেও অসহায়দের পাশে দারাবো।

ত্রাণ বিতরণে উপস্থিত ছিলেন-জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টি ঢাকা জেলা সভাপতি হাসনাত আজাদ, জাতীয় শ্রমিক পার্টির ঢাকা জেলা সভাপতি আল কামরান, জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির আশুলিয়া থানার আহবায়ক হাবিবুর রহমানসহ প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here